পিউবারফনিয়া চিকিৎসায় স্পিচ এন্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপি

0

সুবির দাস একটি অভিজাত হোটেলের কর্তব্যরত একজন কর্মচারী। তার বয়স এখন ২৮ বছর। তিনি প্রায় ১৮ বছর ধরে পিউবারফনিয়া কণ্ঠস্বরজনিত সমস্যায় ভুগছেন। পরিবার, আত্নিয়সজন, বন্ধুদের অনেক তিরস্কারের মধ্য দিয়ে তিনি তার পড়াশুনা খুব কষ্টে শেষ করেছেন। এখন পেশাজীবনে তিনি অত্যন্ত কর্মঠ এবং তিনি তার দায়িত্ব-কর্তব্য খুবই নিষ্ঠার সাথে পালন করে যাচ্ছেন। কিন্তু কণ্ঠস্বরের সমস্যার জন্য দীর্ঘদিনধরে তিনি কোনো প্রমোশন পাচ্ছেননা এবং নিজের বিয়ের ব্যাপারেও ভাবতে পারছেন না। তাই অবশেষে তিনি স্পিচ এন্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপিস্টের শরনাপন্ন হলেন। থেরাপিস্ট সুবির সাহেবকে ভালভাবে দেখে সমস্যা সম্পর্কে তাকে বুঝিয়ে বললেন। সেইসাথে কিছু ব্যায়াম, গলায় ম্যাসাজ, রিলাকজেশন ও নিয়মকানুন দিলেন। তিনি থেরাপিস্টের দেয়া নির্দেশিকা খুবই যত্নের সাথে মেনে চলা শুরু করলেন এবং অল্প কিছুদিনের (প্রায় এক মাস)মধেই তিনি স্বাভাবিক কণ্ঠস্বর ফিরে পেলেন। বর্তমানে তিনি পেশাজীবনে একজন সফল ব্যক্তি এবং নিজের বিয়ের ব্যাপারেও ভাবতে তার আর কোন বাধা নেই।

পিউবারফনিয়া একটি কণ্ঠস্বরজনিত সমস্যা। বয়োসন্ধিকালের পর প্রত্যেক ছেলে এবং মেয়ের কণ্ঠস্বর পরিবর্তন হয় অর্থাৎ শিশু কণ্ঠস্বর থেকে প্রাপ্তবয়স্ক কণ্ঠস্বরে পরিবর্তন হয়। কিন্তু কোন কোন ছেলে এবং মেয়ের বয়োসন্ধিকালের পরও কণ্ঠস্বরের পরিবর্তন হয় না। এই কণ্ঠস্বরের সমস্যাকে ছেলেদের ক্ষেএে বলা হয় পিউবারফনিয়া আর মেয়েদের বলা হয় জুভেনাইল ভয়েজ।

কারণঃ আবেগজনিত সমস্যা, নির্দিষ্ট বয়সে সেকচুয়াল পরিবর্তনে বিলম্ব, মানুষিক সমস্যা, মা-বাবার অতিরিক্ত আদরস্নেহ।

লক্ষণঃ অস্বাভাবিক অতিরিক্ত তীক্ষ্ণ স্বরের কণ্ঠ, কর্কশ কণ্ঠস্বর, উচ্চ স্বরে কথা বলতে সমস্যা, কথা বলার সময় অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে যাওয়া, কথা বলার সময় নিশ্বাসের স্বল্পতা।

চিকিৎসাঃ

  1. নিচু তীক্ষ্ণতার কণ্ঠস্বরে কথা বলার অভ্যাস গড়ে তোলা।
  2. এডাম’স আপেলে জোরে চাপ দিয়ে কাশি দেয়া।
  3. কাশি দিয়ে সাথে সাথে (একটুও থামা যাবে না) ‘আ’ শব্দ করা।
  4. কাশি দিয়ে সাথে সাথে (একটুও থামা যাবে না) হামিং (দুই ঠোঁট বন্ধ করে ‘হুম’ শব্দ করা) এবং সাথে সাথে ‘আ’ শব্দ করা। সম্পূর্ণ ব্যায়াম এক নিঃশ্বাসে করতে হবে।
  5. কাশি দিয়ে সাথে সাথে (একটুও থামা যাবে না) একটি বাক্য (যেমনঃ আমার নাম … …, আমার বয়স …… ) বলা।
  6. ল্যারিংসের দুইপাশ হাত দিয়ে ধরে ডানে-বামে নড়াচড়া করা।
  7. ইয়ন সাই বা হাই তোলা ব্যায়াম করা।
  8. হামিং (দুই ঠোঁট বন্ধ করে ‘হুম’ শব্দ করা) ব্যায়াম।
  9. ‘বুম টেকনিক’ (ঢোগ গিলে শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে ‘বুম’ শব্দ করা)। এই ব্যায়াম থুঁতনি বুকে লাগিয়ে, মাথা ডানে-বামে এবং পিছনে নিয়ে করতে হবে।
  10. ‘গ্লোটাল এটাক’ (নিঃশ্বাস নিয়ে আটকে রেখে গলায় জোরে চাপ দিয়ে ‘আ’ শব্দ করতে করতে ধীরে নিঃশ্বাস ছাড়া)।
  11. মুখ যথাসম্ভব প্রসস্থ করে নিচের চোয়াল ডানে-বামে নিয়ে চাবানোর মতো করা এবং সেই সাথে ‘আম’ শব্দ করা।
  12. এক নিঃশ্বাসে উচু স্বরে হামিং শুরু করে নিচু স্বরে থামতে হবে।
  13. রিলাকজেসন টেকনিক (পেট ফুলিয়ে নাক দিয়ে নিঃশ্বাস নিয়ে মুখ ফুঁ দিয়ে ছাড়া)।
  14. স্পিচ রেঞ্জ মাস্কিং।
  15. ভিজি পিচঃ যান্ত্রিক থেরাপি।
  16. সার্জারি।

উপযুক্ত চিকিৎসার মাধ্যমে এ সমস্যা শতভাগ ভালো করা সম্ভব। আর এর একমাত্র চিকিৎসা স্পিচ এন্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপি। স্পিচ এন্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপিস্ট কণ্ঠস্বরের বিভিন্ন ব্যায়াম, গলায় ম্যাসাজ, রিলাকজেশন এবং কাউনসিলিংয়ের মাধ্যমে চিকিৎসা দিয়ে থাকেন।

আমদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ এই চিকিৎসা সম্পর্কে অবগত নয়। এর ফলে স্কুল-কলেজে, চাকুরীতে এবং বিবাহিত জীবনে অনেক বাধার সম্মুখীন হচ্ছে। তাই একজন দক্ষ স্পিচ এন্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপিস্টের সরনাপন্ন হয়ে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে কণ্ঠস্বরের সমস্যাজনিত রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসা নিন।

হিমিকা আরজুমান
কনসালটেন্ট স্পিচ এন্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপিস্ট
থেরাপি প্লাস (একটি থেরাপি ভিত্তিক চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান)
৫৯, প্রবাল হাউজিং, আদাবর, মোহাম্মদপুর, ঢাকা
যোগাযোগঃ ০১৭৫৯১৯৫৬২২
ই-মেইলঃ himica.arjuman@gmail.com

Share.

About Author

HIMICA ARJUMAN is one of the renowned Health care Professional in Bangladesh. She has completed her Bachelor's Degree in Speech & Language Therapy from BHPI (Academic Institute of CRP) under the Faculty of Medicine (DU). Her Expertise Areas are: Neurodevelopmental Disorders (Specially Autism Management) , Post Stroke Rehabilitation, Stuttering, Treatment of voice disorders etc. She was the Ex Clinical Practitioner of CRP, Executive Therapist of Little Wonders and at Present Managing Director & Clinical Consultant of Speech & Language Therapy Unit of 'Therapy Plus'. Contact: himica.arjuman@gmail.com

Leave A Reply